বিশ্বের অর্ধেক দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সমপরিমাণ সম্পদ ২৬ ধনীর হাতে

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক॥
বিশ্বের অর্ধেক দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সমপরিমাণ সম্পদ ২৬ ধনীর হাতে রয়েছে। দাতব্য সংস্থা অক্সফাম সোমবার একথা বলেছে। বিরাট এ ব্যবধান কমিয়ে আনতে সংস্থাটি করের পরিমাণ বাড়াতে সরকারগুলোর প্রতি আহবান জানিয়েছে।

দাভোসে অনুষ্ঠেয় বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সম্মেলনের প্রাক্কালে দাতব্য সংস্থাটি এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে বলা হয়, ২০১৮ সালে বিশ্বব্যাপী ধনকুবেরদের প্রতিদিন সম্পদ বেড়েছে ২৫০ কোটি ডলার করে।

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি আমাজনের সিইও জেফ বেজোসের সম্পদ গত বছর বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ২০০ কোটি ডলারে। এ পরিমাণ সম্পদ ১০ কোটি ৫০ লাখ জনঅধ্যুষিত ইথিওপিয়ার স্বাস্থ্য বাজেটের সমান। এর বিপরীতে গত বছর ৩৮০ কোটি দরিদ্র লোকের সম্পদ ১১ শতাংশ কমেছে

অক্সফাম বলছে, ধনী ও দরিদ্রের মধ্যে সম্পদের এই ব্যাপক বৈষম্য দারিদ্র্য বিরোধী লড়াইকে গুরুত্বহীন করে তুলছে। এছাড়া অর্থনীতিকে করেছে ক্ষতিগ্রস্ত এবং গণঅসন্তোষকে তীব্র করছে।

অক্সফামের নির্বাহী পরিচালক উইনি বিয়ানিমা এক বিবৃতিতে বলেন, বিশ্বব্যাপী জনগণ ক্ষুব্ধ ও হতাশ।

অক্সফাম সতর্ক করে বলছে, একই সময়ে দেশে দেশে সরকার শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের মতো সেবা খাতগুলোতে অর্থায়ন কমিয়ে এই বৈষম্যের আরো বিস্তার ঘটাচ্ছে।

অক্সফামের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, অতিধনী ব্যক্তি ও কর্পোরেশনগুলো কয়েক দশকে তাদের কর দেওয়ার পরিমাণ কমিয়েছে। ফলে, শিক্ষকহীন শিক্ষার্থী, ওষুধবিহীন ক্লিনিকের এখন ছড়াছড়ি।
সূত্র : বাসস

Views 18 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad