জামালপুরের দুটি আসনে নৌকার চিঠিতে চারজনের নাম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
বাংলারচিঠি ডটকম

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামালপুর জেলার দুটি আসনে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চারজন মনোনয়ন প্রত্যাশীকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দিয়ে চিঠি দিয়েছে। সকল জল্পনা কল্পনা যখন নিরসন হবে তখন দলটির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের ২৫ নভেম্বর দেওয়া এমন সিদ্ধান্ত প্রকাশিত হওয়ায় ফের শঙ্কিত হয়ে পড়েছে তাদের সমর্থক দলীয় নেতাকর্মীরা। দুই আসনেরই সাধারণ মানুষের মধ্যেও নতুন করে কৌতুহলের সৃষ্টি করেছে শেষ মুহূর্তে আসন দুটিতে কে কে হচ্ছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী।

দলীয় নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, জামালপুর জেলার পাঁচটি আসনের মধ্যে জামালপুর-১ দেওয়ানগঞ্জ-বকশীগঞ্জ আসনে সাবেক তথ্যমন্ত্রী বর্তমান সংসদ সদস্য মো. আবুল কালাম আজাদ ও বকশীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত চূড়ান্ত প্রার্থিতার চিঠি পেয়েছেন। অন্যদিকে জামালপুর-৫ সদর আসনে টানা চারবার নির্বাচিত বর্তমান সংসদ সদস্য মো. রেজাউল করিম হীরা এবং জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য প্রকৌশলী মো. মোজাফফর হোসেন সিআইপি চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার চিঠি পেয়েছেন।

এ দুটি আসনে দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী চারজন প্রার্থীর কর্মীসমর্থকদের মধ্যে নতুন হিসেব নিকেশ চলছে। নেতাকর্মীদের মধ্যে একদিকে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা, মিষ্টি বিতরণ ও আনন্দ প্রকাশ, একই সাথে হৃদপি- কাঁপানো শঙ্কা ছড়িয়ে পড়েছে। দল শেষ পর্যন্ত কাকে নৌকা প্রতীক দিবে তা নিয়ে বিভিন্ন বাজার, হোটেল রেস্তোরাঁ, চায়ের আড্ডা, অফিস আদালত থেকে শুরু করে সর্বত্রই সাধারণ মানুষের মধ্যে এ নিয়েই চলছে নানান আলোচনা-সমালোচনা।

২৫ নভেম্বর সকালে এ দুটি আসনের চার প্রার্থীর মনোনয়ন চিঠি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার চিঠিপ্রাপ্ত প্রত্যেক প্রার্থীর সমর্থকরা সেই চিঠির কপি অসংখ্য ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করে দাবি করেছেন তাদের নেতার মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার। মনোনয়ন চিঠির ফটোকপিও ছড়িয়ে পড়েছে নেতাকর্মীদের মাঝে। তবে এ নিয়ে এ দুটি আসনের কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। এ দুটি আসন শেষ পর্যন্ত কি হবে জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারাও এ নিয়ে নানা শঙ্কায় রয়েছেন।

জামালপুরের দুটি আসনে দলীয় চারজনের চিঠি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আইনজীবী মুহাম্মদ বাকি বিল্লাহ বাংলারচিঠিডটকমকে বলেন, জামালপুর-১ দেওয়ানগঞ্জ-বকশীগঞ্জ ও জামালপুর-৫ সদর আসনে চারজন প্রার্থীর চিঠি পাওয়া প্রসঙ্গে আমি কোনো মন্তব্য করতে পারবো না। একটি আসনে একজনই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে এ কথা ঠিক। সেক্ষেত্রে আমাদের দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত দিবেন আমরা জেলা আওয়ামী লীগ তাকেই বিজয়ের লক্ষ্য নিয়ে ভোটের দিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকবো।

Views 28 ফেসবুকে শেয়ার করুন!
sarkar furniture Ad
Green House Ad