ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন কারাগারে

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক॥
মানহানির মামলায় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত।

২৩ অক্টোবর ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলাম শুনানি নিয়ে এই আদেশ দেন। বেলা একটার দিকে মইনুল হোসেনকে আদালতে নেয় ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

আদালতে শুনানিতে মইনুল হোসেনের পক্ষে আইনজীবীরা যে অভিযোগে মামলাটি হয়েছে, সেটি জামিনযোগ্য দাবি করে আদালতে জামিনের আবেদন পেশ করেন। অপরদিকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের জামিনের বিরোধিতা করে আদালতে শুনানি করেন ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি আবদুল্লাহ আবু ও আইনজীবী কাজী নজিবুল্লাহ হিরু।

রংপুরে করা মানহানির এক মামলায় ২২ অক্টোবর রাত পৌনে ১০টার দিকে রাজধানীর উত্তরায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বাসা থেকে মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কার্যালয়ে আনা হয়।

২২ অক্টোবর রংপুর মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মিলি মায়া বেগম নামের এক নারী মানহানির এ মামলা করেন। ওই মামলা আমলে নিয়ে বিচারক আরিফা ইয়াসমিন মুক্তা একইদিন মইনুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদেশ দেয়।

১৬ অক্টোবর রাতে ৭১ টেলিভিশনে ‘৭১ এর জার্নাল’ টকশোতে নারীনেত্রী, মানবাধিকারকর্মী ও সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। এ মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। ওই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে মানহানির অভিযোগে দেশের বিভিন্ন আদালতে বেশ কটি মামলা দায়ের হয়েছে।
সূত্র : বাসস

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad