নরসিংদীতে দুই নারী জঙ্গির আত্মসমর্পণ

বাংলারচিঠি ডটকম ডেস্ক॥
নরসিংদীতে পুলিশের ঘিরে রাখা বাড়ির ভেতর থেকে জিএমবি’র দুই নারী জঙ্গি সদস্য ১৭ অক্টোবর দুপুরে আত্মসমর্পণ করেছেন।

জেলার মাধবদী এলাকায় নিলুফার ভিলায় ভিতরে দীর্ঘ ৪২ ঘন্টা অবরুদ্ধ থাকার পর পুলিশের আহ্বানে তারা আত্মসমর্পণ করে বলে জানিয়েছেন, পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

১৭ অক্টোবর দুপুর আড়াইটার দিকে তারা আত্মসমর্পণ করে। পরে পুলিশের সোয়াট টিমের সদস্যরা বোরকা পরিহিত অবস্থায় মাথায় হেলমেট লাগিয়ে বাড়ির ভিতর থেকে তাদেরকে বের করে আনে। এসময় বাড়ির ভিতর থেকে বেশ কয়েকটি বোমা উদ্ধার করা হয়।

আত্মসমর্পণ করা দুই নারী জঙ্গির নাম ইশরাত জাহান ওরফে মৌসুমী ওরফে মৌ (২৪) ও খাদিজা পারভীন ওরফে মেঘলা (২৫)।

পুলিশ জানায়, ২০১৬ সালের ১৪ ও ১৫ আগস্ট গাজীপুর ও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে র্যা ব সদস্যরা সন্দেহভাজন চার নারী জঙ্গিকে গ্রেফতার করে। এরমধ্যে মৌ ও মেঘলা ছিল। জামিন পেয়ে তারা আবার জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ে।

পুলিশ আরও জানায়, তারা উভয়ে ২০১৬ সালের হলি আর্টিজান হামলা মামলার আসামি। বর্তমানে তারা জামিনে আছে। তারা মনারত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। তারা গত ৫ অক্টোবর মাধবদী ও শেখেরচর এলাকার দুটি বাড়ি ভাড়া নেয়। খাদিজার স্বামীও নব্য জেএমজির একজন সক্রিয় সদস্য।

মনিরুল ইসলাম বলেন, তাদেরকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাড়ীর ভিতরে থাকা বেশ কিছু বোমাও উদ্ধার করা হয়েছে। সেগুলো নিষ্কৃয় করা হচ্ছে।

খাদিজা ও মৌয়ের বিরুদ্ধে মাধবদী থানায় সন্ত্রাসী আইনে একটি মামলা দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি।

এরআগে ১৬ অক্টোবর নরসিংদীর শেখের চরের ভগিরথপুর এলাকার বিল্লাল মিয়ার বাড়িতে অপারেশন ‘গর্ডিয়ান নট’ চালানো হয়। ৬ ঘন্টার অভিযান শেষে সেখান থেকে এক নারী ও এক পুরুষের লাশ উদ্ধার করা হয়। একটি আগ্নেয়াস্ত্রও উদ্ধার করা হয়।

ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে পুলিশ তাদের পরিচয় সনাক্ত করেছে। তারা হলেন, আকলিমা আক্তার মনি ও আবদুল্লাহ আল বাঙালি।
সূত্র : বাসস

সর্বশেষ
sarkar furniture Ad
Green House Ad