বিদ্রোহী নজরুল বকশীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হওয়ার পথে

nazrul-fakruzzaman

মোস্তফা মনজু, জামালপুর॥
জামালপুরের বকশীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নজরুল ইসলামই মেয়র হতে যাচ্ছেন। নির্বাচনে পৌরসভার ১২টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত একটি কেন্দ্রের পুনরায় ভোটগ্রহণ সাপেক্ষে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হবে বলে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও উদ্বেগ উৎকণ্ঠার মধ্যে দিয়ে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ১১টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফলে মো. নজরুল ইসলাম দ্বিতীয় স্থানে থাকা বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মো. ফকরুজ্জামানের চেয়ে ৮৯৪ ভোট বেশি পেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। মো. নজরুল ইসলাম পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৯৯ ভোট। মো. ফকরুজ্জামান পেয়েছেন ৭ হাজার ৭০৫ ভোট।

তৃতীয় স্থানে থাকা আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহীনা বেগম পেয়েছেন ৫ হাজার ১৬০ ভোট। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেতা নারকেল গাছ প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আনোয়ার হোসেন তালুকদার বাহাদুর পেয়েছেন ৮৩৩ ভোট, আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেতা মোবাইল ফোন প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এ এম নুরুজ্জামান পেয়েছেন ৪৯৬ ভোট এবং কম্পিউটার প্রতীকের অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী সোলায়মান হক পেয়েছেন ১৩১ ভোট।

জানা গেছে, বকশীগঞ্জ পৌরসভার মালিরচর হাজিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নারী ভোট কেন্দ্রে বৃহম্পতিবার দুপুরের পর নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী শাহীনা বেগমের সমর্থকেরা কেন্দ্র দখল করে জোর করে ব্যালট পেপারে সিল মারাকে কেন্দ্র করে গোলযোগের সৃষ্টি হয়। এ সময় আইনশৃংখলারক্ষাকারী বাহিনীর হস্তক্ষেপে ওই কেন্দ্রের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও রহস্যজনক কারণে পরে ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়। স্থগিত ওই ভোট কেন্দ্রে মোট ভোটার রয়েছে ১ হাজার ৫২৮ জন। ভোটের হিসেবে দেখা যাচ্ছে, স্বতন্ত্র জগ প্রতীকের প্রার্থী মো. নজরুল ইসলামের চাইতে ৩ হাজার ৪৩৯ ভোটের ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহীনা বেগম। শাহীনা বেগম ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো. ফখরুজ্জামানের চাইতেও ২ হাজার ৫৪৫ ভোটের ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছেন।

সেই হিসেব অনুযায়ী স্থগিত কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণের দিন জগ ও ধানের শীষ প্রতীকের মধ্যেই ফলাফল নির্ধারিত হবে। ধানের শীষের প্রার্থীর চাইতে ৮৯৪ ভোটে এগিয়ে থাকায় ওই কেন্দ্রের পুনরায় ভোট গ্রহণ সুষ্ঠু হলে বকশীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে মো. নজরুল ইসলামের নির্বাচিত হওয়ার পথ অনুকূলে রয়েছে।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনজুরুল আলম বলেন, আজকে ১১টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হলো। স্থগিত ভোট কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণের বিষয়ে খুব শিগগির সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে। ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ শেষে মেয়র পদে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হবে।