বকশীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ ২৮ ডিসেম্বর, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

bakshigonj pourasovaজিএম ফাতিউল হাফিজ বাবু, বকশীগঞ্জ॥
জামালপুরের বকশীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আগামীকাল ২৮ ডিসেম্বর প্রথম ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন উপলক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়।

জানা গেছে, ২০১৩ সালে পৌরসভা গঠনের পর এবারই প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শাহীনা বেগম, বিএনপির মেয়র প্রার্থী ফকরুজ্জামান মতিন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে নজরুল ইসলাম সওদাগর, এ এম নুরুজ্জামান জামান, আনোয়ার হোসেন তালুকদার বাহাদুর ও সোলাইমান হক এই ছয়জন মেয়র প্রার্থী অংশ নিয়েছেন। এছাড়াও ৫৮ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ২১ জন সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।

নির্বাচন অবাধ ও নিরপেক্ষ করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এবার নয়টি ওয়ার্ডের ১২টি কেন্দ্রে ৮৪টি বুথে ভোট গ্রহণ করা হবে। এতে ১২ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ৮৪ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা , ১৬৮ জন পোলিং কর্মকর্তা নির্বাচনী দায়িত্বে রয়েছেন। নির্বাচনে ৩০ হাজার ৫৯১ জন ভোটার তাদের ভোট প্রদান করবেন।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রতিটি কেন্দ্রে ১০ জন পুলিশ, ১৫ জন আনসার সদস্য, দুুই প্লাটুন বিজিবি সদস্য ও র‌্যাবের স্ট্রাইকিং ফোর্স সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও ১২টি কেন্দ্রের জন্য ১৮ জন প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম ও একজন বিচারিক হাকিম নির্বাচনের দায়িত্বে থাকবেন।

বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে ১২টি কেন্দ্রের ১২টিই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলো নিয়ে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ফকরুজ্জামান মতিন ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মঞ্জুরুল আলম জানান, আগামীকালের নির্বাচন উপলক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে প্রশাসন জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করবেন।