লিগ্যাল এইডের মাধ্যমে ৯ বছরে আইনি সহায়তা পেয়েছে ২,৬৯,৩৯০ জন

বাংলার চিঠি ডটকম ডেস্ক॥
লিগ্যাল এইডের মাধ্যমে আইনি সেবা প্রাপকের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার (লিগ্যাল এইড) সর্বশেষ হিসেব অনুযায়ী (২০১৭ সালের অক্টোবর পর্যন্ত সারাদেশে ২,৬৯,৩৯০ জন লিগ্যাল এইডের মাধ্যমে আইনি সহায়তা পেয়েছে। একই সময়ে মামলার নিস্পত্তি হয়েছে প্রায় ৭৪ হাজার।

উল্লেখ্য-দেশের দরিদ্র ও অসমর্থ জনগোষ্ঠী, শ্রমিক, সহিংসতার শিকার নারী-শিশু এবং পাচারের শিকার মানুষের জন্য আইনি সেবা নিশ্চিতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার ২০০০ সালে আইন প্রণয়নের মধ্যদিয়ে এর যাত্রা শুরু করে।

২০০০ সালে এটি যাত্রা শুরু করলেও পরবর্তীতে ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এটির কার্যক্রম স্তবির হয়ে পড়ে।

২০০৯ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠিত হলে লিগ্যাল এইডের কার্যক্রমে গতি ফিরে আসে। লিগ্যাল এইডের মূল আইনের অধীনে বিভিন্ন বিধি প্রণীত হয়।বিধিতে কারা আইনি সহায়তা পাওয়ার বিষয়টিও তা নির্ধারণ করা হয়। এখন দেশের সবক’টি জেলা আদালত, চৌকি আদালত এবং সুপ্রিমকোর্টে লিগ্যাল এইড সার্ভিস চালু রয়েছে।

২০০৯ সালে লিগ্যার এইডের মাধ্যমে ৯ হাজার ১শ’ ৬০ জন আইনি সহায়তা পায়। পরের বছর ২০১০ সালে এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১১ হাজার ২শ’ ৬৬ জনে।
সূত্র : বাসস

sarkar furniture Ad
Green House Ad