যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূল থেকে মানুষকে সরে যাওয়ার নির্দেশ

বাংলার চিঠি ডটকম ডেস্ক॥
যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ফ্লোরেন্সের অতিক্রম করার পথ থেকে দশ লাখের বেশি মানুষকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চার ক্যাটাগরির শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড়টি ঘন্টায় ২২০ কিলোমিটার বেগে পূর্ব উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। খবর এএফপি’র।

পূর্ব উপকূলে বহু বছরেও ফ্লোরেন্সের মতো ভয়াবহ ঝড় আঘাত হানেনি উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইটারে জনগণকে সতর্ক করে বলেন, দয়া করে সকলে প্রস্তুত থাকুন,সতর্ক এবং নিরাপদে থাকুন।

সাউথ ক্যারোলাইনার গভর্ণর হেনরি ম্যাকমাস্টার ৬ সেপ্টেম্বর ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাসে পূর্ব উপকূল থেকে প্রায় দশ লাখ বাসিন্দাকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। রাজ্যের ৪৬ টি প্রশাসনিক অঞ্চলের ২৬ টি স্কুল বন্ধ রয়েছে।

ভার্জিনিয়ায় যখন জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয় তখন পার্শবর্তী নর্থ ক্যারোলাইনার গভর্ণর উপকূলবর্তী জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র এবং প্রশাসনিক এলাকাগুলো খালি করার নির্দেশ দেন।

ক্যরোলাইনার প্রশাসনিক এলাকা খালি করার নির্দেশ সম্পর্কে ম্যাকমাস্টার বলেন, এটি খুবই ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়, তাই উপকূলীয় এলাকা খালি করার নির্দেশ অত্যাবশ্যকীয়, স্বেচ্ছাকৃত নয়। আমরা সাউথ ক্যারোলাইনার বাসিন্দাদের জীবনের ঝুঁকি নিতে চাই না।

ন্যাশনাল হ্যারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানায়, পাঁচ ক্যাটাগরির মধ্যে ভয়াবহ চার ক্যাটাগরি সম্পন্ন ঘূর্র্ণিঝড় ফ্লোরেন্স বারমুডা থেকে ৫২৫ মাইল দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্বে অবস্থান করছে। এটি বর্তমানে পশ্চিম দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং শক্তি সঞ্চয় করছে। ১৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এটি বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।
সূত্র : বাসস

sarkar furniture Ad
Green House Ad