২০১৮ সালের মধ্যেই সমগ্র দেশ বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আসবে : নালিতাবাড়ীতে নসরুল হামিদ

নালিতাবাড়ীতে শিক্ষার্থীদের মাঝে সৌরবাতি বিতরণ করেন বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। ছবি : বাংলার চিঠি ডটকম

সুজন সেন, শেরপুর ॥
২০১৮ সালের মধ্যেই সমগ্র বাংলাদেশ বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আসবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি ৩১ জুলাই বিকেলে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদ চত্বর মুক্তমঞ্চে আয়োজিত সমাবেশে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মাঝে সৌরবাতি বিতরণ উপলক্ষে এক জনসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মন্ত্রী বলেন, এই বাংলাদেশ হবে সফলকাম আধুনিক বিশ্বের পরিবেশ বান্ধব একটি দেশ। আমরা অসম্ভবকে সম্ভব করতে যাচ্ছি। সৌরবাতি দিচ্ছি, বাড়ি আলোকিত করছি, মানুষের সাহস আলোকিত করছি, জীবন আলোকিত করছি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে আমরা সমগ্র বাংলাদেশে বিদ্যুতায়ন করতে যাচ্ছি। তখন আমরা বিশহাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সাফল্যে থাকব।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, আজকে আলোর বার্তা সবার হাতে চলে আসছে। শেখ হাসিনা সমগ্র গ্রাম আলোকিত করছেন। আপনাদের একমাত্র বার্তা হবে, আগামীতে যে করেই হোক মতিয়া চৌধুরীকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করা। এর কোনো বিকল্প নেই। আমরা যদি মাথা উঁচু করে বিশ্বের কাছে এক নম্বর দেশ হতে চাই, তাহলে নৌকা মার্কার কোনো বিকল্প নাই। এখন জামাত-বিএনপি জোট প্রত্যেকটা ঘরে ঘরে ষড়যন্ত্র করতে যাচ্ছে। আমাদেরকে তা মোকাবেলা করতে হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধূরী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে নারী, এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। মেয়েরা আজ হিমালয় জয় করছে। দেশের বাইরে ছেলেরা যখন হেরে যাচ্ছে, কিন্তু মেয়েরা জিতে যাচ্ছে। তাই নারীরা শেখ হাসিনার পেছনে আছে।

শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জন কেনেডি জাম্বিলের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল হোসেন মাস্টার ও সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক প্রমুখ।

এ সময় শেরপুরের পুলিশ সুপার আশরাফুল আজীম, কৃষি বিভাগের উপ-পরিচালক আশরাফ উদ্দিন, নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুর রহমানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে মন্ত্রীদ্বয় প্রাথমিক বিদ্যালয়, এবতেদায়ী, ক্বওমী, নূরাণী ও হাফেজিয়া মাদরাসাসহ ১৪২ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় সাড়ে ৪ হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে সৌরবাতি বিতরণ করেন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad