জামালপুরের ভাষাসংগ্রামী আব্দুল ওয়াহাব আর নেই

ভাষাসংগ্রামী আব্দুল ওয়াহাব

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর ॥
জামালপুরের ভাষাসংগ্রামী ও মুক্তিযুদ্ধের সময় বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে বেঁচে যাওয়া আব্দুল ওয়াহাব (৯৩) আর নেই। বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি ৩০ জুলাই রাত দু’টা ২০ মিনিটের দিকে জামালপুর শহরের পূর্ব মুকুন্দবাড়ী এলাকায় নিজ বাসায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

তাঁর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি কিছুদিন ধরে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে পরিবারের স্বজনদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। তিনি দুই মেয়েসহ অনেক আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

জামালপুরের ভাষা ও মুক্তিগ্রাম গবেষণা কেন্দ্র ও উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ ৩১ জুলাই দুপুরে তাঁর কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

৩১ জুলাই আছর নামাজের পর জামালপুর শহরের পূর্ব মুকুন্দবাড়ী এলাকায় ছানা সরকারের রাইসমিলে তাঁর নামাজে জানাজা শেষে পৌর কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।

প্রসঙ্গত, প্রয়াত আব্দুল ওয়াহাব ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের দিনগুলোতে তৎকালীন জামালপুর মহকুমা শহরে যেকোনো সভা, সমাবেশ ও মিছিলে অংশ নিয়ে সক্রিয়ভাবে জড়িত থেকে অনেক অবদান রাখেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকহানাদারদের অত্যাচার, নির্যাতনের তিনি ছিলেন জীবন্ত সাক্ষী। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি জামালপুর শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া ব্রহ্মপুত্র নদের ফেরিঘাট এলাকায় পাক হানাদারদের আক্রমনের সময় বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হলেও অনেকটা অলৌকিকভাবে বেঁচে গেছিলেন।

sarkar furniture Ad
Green House Ad